1. bdweb24@gmail.com : admin :
  2. him@bdsoftinc.info : Staff Reporter : Staff Reporter
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৯:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
কোটা সংস্কার নিয়ে প্রয়োজনে সংসদে আইন পাস: জনপ্রশাসনমন্ত্রী ২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের সব বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত কোটাবিরোধী আন্দোলন: সারাদেশে প্রাণ গেল ৮ জনের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান চায় সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী কোটা সংস্কারে নীতিগতভাবে একমত সরকার: আইনমন্ত্রী রক্ত মাড়িয়ে সংলাপ নয়: সমন্বয়ক হাসনাত আব্দুল্লাহ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় দুই মন্ত্রীকে দায়িত্ব দিলেন প্রধানমন্ত্রী উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত রংপুরে ‘লজ্জায়’ আ.লীগ-ছাত্রলীগের দুই শতাধিক নেতাকর্মীর পদত্যাগ আবারও মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ব্রিফিংয়ে কোটা আন্দোলন প্রসঙ্গ

১০ মাসেই শেষ বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় সুড়ঙ্গ খননকাজ

রিপোর্টার
  • আপডেট : শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৫১ বার দেখা হয়েছে

বঙ্গনিউজবিডি ডেস্ক : চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মাণাধীন টানেলের দ্বিতীয় সুড়ঙ্গের খননকাজ গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে শেষ হয়েছে। তবে এই কাজটি চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে শেষ করার লক্ষ্য ছিল। কিন্তু কাজটি ১০ মাসেই শেষ হয়েছে।

টানেলের দ্বিতীয় সুড়ঙ্গের খননকাজ শেষ হওয়ায় বহুপ্রতীক্ষিত এই টানেল চালুর পথে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল। এখন শুধু সড়ক তৈরি ও অন্যান্য কাজ বাকি আছে।

এই প্রকল্পের কাজ ২০২২ সালের ডিসেম্বরে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু এর আগেই কাজ শেষ করে টানেল চালুর আশা করছেন প্রকল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। তারা বলছেন, যে গতিতে এখন কাজ হচ্ছে, এটা অব্যাহত থাকলে প্রকল্পের কাজ আগেই শেষ করা সম্ভব।

গত মঙ্গলবার পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে বলেছিলেন, শুক্রবার রাতে টানেলের দ্বিতীয় সুড়ঙ্গের খননকাজ সম্পন্ন হবে। আর নির্ধারিত সময়ের আগেই টানেল প্রকল্পটির কাজ শেষ হবে। তবে যান চলাচল কবে নাগাদ শুরু হবে- সে বিষয়ে প্রকল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, এটা সরকারের সিদ্ধান্ত।

টানেল নির্মাণের জন্য ২০১৫ সালের ২৪ নভেম্বর চীনের সঙ্গে চুক্তি হয়। এরআগে প্রকল্প বাস্তবায়নে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ ও চীনের সরকারি পর্যায়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

এই টানেল নির্মাণের জন্য চীন সরকার সে দেশের প্রতিষ্ঠান চায়না কমিউনিকেশন অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন কম্পানি (সিসিসিসি) লিমিটেডকে নিয়োগ করে। আর টানেলের নির্মাণকাজ ২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়। উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১০ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা টানেলটি নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে। আর নদীর তলদেশে নির্মাণাধীন দেশের প্রথম টানেলের নামকরণ করা হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে।

প্রকল্পটির পরিচালক প্রকৌশলী হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, ১৭ মাস সময় লেগেছিল প্রথম সুড়ঙ্গ খননে। আর ১০ মাসের মধ্যে দ্বিতীয় সুড়ঙ্গ খনন শেষ হয়েছে। আর এরই মধ্যে ৭৩ শতাংশ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে। বাকি ২৩ শতাংশ কাজ প্রকল্পের মেয়াদের অনেক আগেই শেষ হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ

© ২০২৩ bongonewsbd24.com