1. bdweb24@gmail.com : admin :
  2. him@bdsoftinc.info : Staff Reporter : Staff Reporter
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৯:০৪ অপরাহ্ন

হামাসকে চাপ দিতে শীর্ষ সহযোগীদের পাঠাচ্ছেন বাইডেন

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০২৪
  • ২৮ বার দেখা হয়েছে

বঙ্গনিউজবিডি ডেস্ক: গাজাভিত্তিক ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার শীর্ষ সহযোগীদের মধ্যপ্রাচ্যে পাঠাচ্ছেন। ইসরাইলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সর্বসাম্প্রতিক প্রস্তাবের প্রেক্ষাপটে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত সপ্তাহে গাজায় অস্ত্র বিরতির জন্য তিন পর্বের অস্ত্র বিরতি পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছিলেন সে বিষয়ে চাপ দেয়ার জন্য তিনি তাঁর শীর্ষ সহযোগীদের মধ্যপ্রাচ্যে পাঠাচ্ছেন। ওই পরিকল্পনায় রয়েছে প্রাথমিকভাবে ছয় সপ্তাহের অস্ত্রবিরতি এবং হামাসের হাতে বন্দি কয়েকজন পণবন্দীর এবং ইসরাইলি কারাগারে আটক কয়েকজন ফিলিস্তিনি বন্দির মুক্তি নিশ্চিত করা।

মঙ্গলবার সিআই-এর পরিচালক বিল বার্ণস দোহায় গেছেন এবং মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক বাইডেনের শীর্ষ উপদেষ্টা ব্রেট ম্যাকগার্ক বুধবার কায়রোতে রয়েছেন বলে প্রশাসনিক কর্মকর্তারা ভয়েস অব আমেরিকাকে জানিয়েছেন। আশা করা হচ্ছে এই দুজন বাইডেনের এই বার্তা তাদের কাছে পৌঁছে দেবেন যে গুরুত্বপূর্ণ মধ্যস্ততাকারী মিসর ও কাতারের মাধ্যমে হামাসের উচিত্ হবে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করা।

এ সপ্তাহের আরো আগের দিকে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-সানি সঙ্গে কথা বলার সময় বাইডেন এই কথার ‍পুনরাবৃত্তি করেন যে পরিকল্পনাটি, ‘গাজায় সংকটের অবসান ঘটাতে’ একটি সুষ্ঠু পথচিত্রের প্রস্তাব দিচ্ছে।

চুক্তিটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে সকল পণবন্দির মুক্তির বিনিময়ে স্থায়ী অস্ত্রবিরতি নিশ্চিত করা যায় এবং গাজার ‍পুনঃনির্মাণ করা যায়। তবে কোনো পক্ষই মনে হয় না সমঝোতার কাছাকাছি পৌঁছাতে পেরেছে।

যদিও ইসরাইলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছে , বাইডেনের ঘোষণার পর পরই ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী সংকল্প ব্যক্ত করেন যে ‘হামাসের সামরিক ও শাসন করার ক্ষমতাকে নস্যাত্’ না করা অবধি কোনো রকম স্থায়ী অস্ত্রবিরতি হবে না।

এর জবাবে হামাস কর্মকর্তা ওসামা হামদান মঙ্গলবার ঘোষণা করেন যে স্থায়ী অস্ত্রবিরতি এবং গাজা থেকে সম্পূর্ণ প্রত্যাহারের ব্যাপারে ইসরাইলি অবস্থান স্পষ্ট না হওয়া পর্যন্ত তারা এ প্রস্তাবে সম্মত হতে পারে না।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেইক সালিভান বলেন, ‘আপনারা মিডিয়াতে অনেক কথাই শুনবেন, বিভিন্ন কন্ঠের বিভিন্ন জনের বিভিন্ন বিবৃতির কথা শুনবেন।’ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফ্রান্সের পথে এয়ার ফোর্স ওয়ান বিমানে বসে তিনি এই কথাগুলো বলেন। বাইডেনও সেখানে যাচ্ছেন বৃহস্পতিবার ডি ডে উদযাপনের লক্ষ্যে।

হামদানের ঘোষণার কথা বাদ দিয়ে সালিভান বলেন যে এই গোষ্ঠীটি কাতারকে যা জানাবে প্রশাসন কেবল সেটাকেই আনুষ্ঠানিক জবাব হিসেবে গ্রহণ করবে। কাতারই প্রস্তাবটি ইসরাইলি আলোচনাকারীদের কাছ থেকে হামাসকে জানিয়েছে।

সালিভান বলেন, ‘আমরা এখনও সেটা পাইনি।’ তিনি আরো বলেন যে কাতারের সাথে যুক্তরাষ্ট্র ঘণ্টায় ঘণ্টায় যোগাযোগ করছে। সূত্র : ভয়েস অব আমেরিকা

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ

© ২০২৩ bongonewsbd24.com